Somapura Buddhist Vihara

সোমপুর বৌদ্ধবিহার

Somapura Buddhist Vihara is one of the main and most ancient archeological relics in the country. It is situated some 15km north-east from Badalgachi Upazila Sadar covering about 17 acres of land. The Somapura Paharpur Buddist Bihar is recognised as one of the ancient cultural heritage of the world with attractive architectural qualities and historical importance. During the Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman government in 1973, UNESCO was requested to include Paharpur Buddhist Bihar in the World Heritage, on which, it was declared as World Heritage in 1985. Dharmapal, the second king of the Pall dynasty (781-829 AD) built this Bihar at the end of 8th Century AD. The area of this Bihar is 273.7 metres from north to the south and 274.15 metres from east to the west. There were 177 rooms for the Buddist followers in the original structure. Sir Cunningham discovered this massive Bihara in 1879 AD. At present there is a museum, a rest house and an administrative building under the supervision Department of Archaeology.

নওগাঁ জেলার পুরাকীর্তিগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান স্থান সোমপুর বৌদ্ধবিহার। এটি নওগাঁর প্রাচীনতম ঐতিহাসিক নিদর্শন যা সতেরো একর জমির উপর অবস্থিত। এ বিহারটি বদলগাছি উপজেলা সদর থেকে ১৫ কি.মি. উত্তর পূর্বে অবস্থিত। আকর্ষণীয় স্থাপত্য বৈশিষ্ট্য ও ঐতিহাসিক গুরুত্বের জন্য পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃত। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারের সময় ১৯৭৩ সালে কাগজপত্র প্রস্তুত করে পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহারকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ-এ অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ইউনেস্কোকে অনুরোধ করা হয়, যার ভিত্তিতে ১৯৮৫ সালে এটি বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষিত হয়। পাল বংশের দ্বিতীয় রাজা ধর্মপাল (৭৮১-৮২৯) অষ্টম শতকের শেষ দিকে এ বিহারটি নির্মাণ করেন। বিহারের আয়তন উত্তর দক্ষিণে ২৭৩.৭ মিটার এবং পূর্ব-পশ্চিমে ২৭৪.১৫ মি.। মূল দালানে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের জন্য ১৭৭টি কক্ষ ছিল। ১৮৭৯ সালে স্যার কানিংহাম এই বিশাল আকৃতির বিহারটি আবিষ্কার করেন। বর্তমানে এখানে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে একটি যাদুঘর, একটি রেস্ট হাউস ও প্রশাসনিক ভবন রয়েছে।